সর্বশেষ সংবাদ
বৃহস্পতিবার রাতে মেলাঘর সজল চৌমুহনী এলাকায় দোকান বন্ধ করে তালা লাগিয়ে বাড়িতে চলে যায় মালিক ইউসুফ নবী।

বৃহস্পতিবার রাতে মেলাঘর সজল চৌমুহনী এলাকায় দোকান বন্ধ করে তালা লাগিয়ে বাড়িতে চলে যায় মালিক ইউসুফ নবী।


বৃহস্পতিবার রাতে মেলাঘর সজল চৌমুহনী এলাকায় দোকান বন্ধ করে তালা লাগিয়ে বাড়িতে চলে যায় মালিক ইউসুফ নবী। শুক্রবার সকালে দোকানে মালিক এসে দেখতে পায় দোকানের তালা ভাঙ্গা। ভেতরে প্রবেশ করতেই দেখতে পান দোকানের দামি দামি জিনিস নেই। পরে মেলাঘর থানায় খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে তদন্ত শুরু করে। জানা যায় সজল চৌমুহনী এলাকায় ছয় মাস আগেও একবার এ দোকানে চুরি হয়। সর্বমোট পাঁচ বছরে সাতবার চুরি হয়। দোকানদার ইউসুফ নবী পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। দোকানের মালিক জানান ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা হবে। তবে অনুমান করা হচ্ছে নেশাখোররা কিছুদিন পরপর এই ধরনের চুরি কান্ড সংগঠিত করছে।

পরবর্তী খবর