728 x 90

ভোট নিরাপত্তায় কঠোর আরক্ষা দপ্তর, অভিযোগ পেলেই ব্যবস্থা গ্রহণ – হুঁশিয়ারি পুলিশ প্রধানের

ভোট নিরাপত্তায় কঠোর আরক্ষা দপ্তর, অভিযোগ পেলেই ব্যবস্থা গ্রহণ – হুঁশিয়ারি পুলিশ প্রধানের

হেডলাইন্স ত্রিপুরা ওয়েব ডেস্কঃ ভোট বিষয়ক নানা ঘটনায় এখন পর্যন্ত রাজ্য পুলিশের হাতে ৩৫টি অভিযোগ জমা পড়েছে। এসকল মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছে ২৩ জন। পুলিশের হাতে ধরা দিয়েছে ৬ জন। যে কোন ধরণের অভিযোগ এলেই সেগুলি নথিভুক্ত করছে পুলিশ। কোন থানা অভিযোগ নিতে না চাইলে সংশ্লিষ্ট থানা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে মানুষ যাতে শান্তিপূর্ণ ও অবাধে নিজেদের ভোট প্রয়োগ করতে পারে তার যাবতীয় ব্যবস্থা নিয়েছে আরক্ষা দপ্তর। শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলনে দ্ব্যর্থহীন ভাষায় একথা বললেন রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশক অখিল কুমার শুক্লা।

         আসন্ন ভোটকে নির্ভেজালভাবে সম্পন্ন করতে আটঘাট বেঁধে নেমেছে আরক্ষা দপ্তর। অপরাধ এবং অপরাধীদের বিরুদ্ধে কোন প্রকার আপোস নয়। সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রাক মুহূর্তে দাঁড়িয়ে কার্যত আরো একবার এই হুঙ্কার শোনা গেলো রাজ্য আরক্ষা দপ্তরের এক নম্বর কর্তার কথাতেই। এমনিতেই সুষ্ঠু ও নির্বিঘ্নে ভোট সম্পন্ন করা একটা অন্যতম চ্যালেঞ্জ আরক্ষা দপ্তরের কাছে। তার উপর লোকসভা নির্বাচন বলেই কথা। নিরাপত্তা ব্যবস্থার কড়াকড়ি তো রয়েছে। ১১ এবং ১৮ এপ্রিল রাজ্যে যথাক্রমে পশ্চিম ত্রিপুরা এবং পূর্ব ত্রিপুরা আসনে হবে ভোট গ্রহণ। আর এই ভোট গ্রহণকে সামনে রেখে ইতিমধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সেরে নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। রাজ্যের ৮টি জেলায় মোতায়েন করা হয়েছে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীও। আর আসন্ন নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে তৎপর রয়েছে রাজ্য আরক্ষা প্রশাসনও। শুক্রবার এই সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছেন রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশক অখিল কুমার শুক্লা। পুলিশ সদর কার্যালয়ের কনফারেন্স হলে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে ডিজিপি জানিয়েছেন, রাজ্যের দুটি আসনে সুষ্ঠু ও অবাধ ভোট করতে তৎপর রয়েছে আরক্ষা প্রশাসন। রাজ্যের ৮টি জেলার পুলিশ সুপারদের এবিষয়ে নির্দেশ দেওয়া রয়েছে। মানুষ যাতে নির্ভয়ে নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে তারজন্য যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৩৯৫টি জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারী মামলা ও স্থায়ী ওয়ারেন্টের মামলায় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। যে সকল আসামী এখনো গ্রেপ্তার হয়নি তাদের গ্রেপ্তারের জন্য জনসাধারণ যাতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। এজন্য আসামীদের তথ্য দিয়ে বিভিন্ন অফিস কাছাড়ীর সামনে নোটিশ বোর্ড টাঙানো হয়েছে।

          পুলিশ প্রধান এ কে শুক্লা আরো জানিয়েছেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে সারা রাজ্যেই ফ্লাইং স্কোয়াড নিয়োজিত রয়েছে। একই সাথে সমস্ত রাজনৈতিক দলের প্রার্থীদের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও জোরদার করা হয়েছে। নির্বাচন সম্পর্কিত কোন অভিযোগ পেলেই দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ। নির্বাচনী বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধেও অভিযোগ সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এর পাশাপাশি সংবাদ প্রতিনিধিদের একাধিক প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন সম্পর্কিত অভিযোগ ইস্যুতেও প্রতিক্রিয়া তুলে ধরেন ডিজিপি এ কে শুক্লা। তিনি জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত পুলিশের কাছে মোট ৩৫টি মামলা নথিভুক্ত হয়েছে। আর এসমস্ত মামলায় ২৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আত্মসমর্পণ করেছে আরো ৬ জন।

         সম্প্রতি এনসিসি থানায় বামুটিয়ার বিধায়কের সাথে এক পুলিশ আধিকারিকের ঝামেলার বিষয়টিও নজরে এসেছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ প্রধান অখিল কুমার শুক্লা। আর এই বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের গোচরে নেওয়া হয়েছে। ডিজিপি আরো জানিয়েছেন নির্বাচনকে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ৬৪ কোম্পানী নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। এর সাথে রয়েছে রাজ্য পুলিশ এবং টিএসআর জওয়ানরাও। এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত থাকেন রাজ্য পুলিশের এডিজি রাজীব সিং, আইজি জি এস রাও এবং ডিআইজি অরিন্দম নাথ।

Loading...
  • Link Shortener

  • http://headlinestripura.in/z/695

Leave a Comment